Recents in Beach

Google Play App

সহকারী অধ্যাপক পদে পদোন্নতি পেলেন বাঁশখালীর কৃতিসন্তান এমরানুল ইসলাম

মোহাম্মদ বেলাল উদ্দিনঃ
চট্টগ্রামের সুনামধন্য বিদ্যাপীঠ স্যার আশুতোষ সরকারি কলেজের সহকারী অধ্যাপক পদে পদোন্নতি লাভ করেছেন বাঁশখালীর কৃতিসন্তান  মোঃ এমরানুল ইসলাম। তার বাড়ি বাঁশখালী উপজেলার পুঁইছড়ি ইউনিয়নের পূর্ব পুঁইছড়ি গ্রামে।

 গত ৩ জুুুুলাই গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষামন্ত্রণালয় কর্তৃক প্রেরিত চিঠির মাধ্যমে সহকারী অধ্যাপক পদে পদোন্নতি লাভের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


তিনি দীর্ঘদিন যাবত অত্যন্ত সুনাম ও দক্ষতার সাথে বাংলা প্রভাষকের দায়িত্ব পালন করে আসছেন। অধ্যাপক  এমরানুল ইসলাম পূর্ব পুইছড়ি গ্রামের ৫নং ওয়ার্ডের মোহাম্মদ নুরুল ইসলামের সন্তান। তার বাবা একজন খ্যাতিমান চিকিৎসক।

 ছোটবেলা থেকেই তিনি ছিলেন  অসাধারণ প্রতিভার অধিকারী ছিলেন।প্রত্যেক শ্রেণিতে তাঁর রয়েছে অভাবনীয় সাফল্য । 

তিনি পুইছড়ি ইজ্জতিয়া উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পাস করেন। পর্যায়ক্রমে কক্সবাজার সিটি কলেজ এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা সমাপ্ত  করেন। এরপর তিনি ২৯তম বিসিএস পরীক্ষায় শিক্ষা ক্যাডারে অংশগ্রহণ করে উত্তীর্ণ হন। দীর্ঘদিন অধ্যাপনার পর গত ৩জুন মঙ্গলবার তিনি বাংলা প্রভাষক হতে সহকারি অধ্যাপক পদে পদোন্নতি পেয়েছেন।।

মানবতার সেবায় নিবেদিত প্রাণ   এমরানুল ইসলাম শিক্ষকতার পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে জড়িত আছেন। তিনি বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ডেও সময় ব্যয় করেন। একটু অবসর পেলেই তিনি ছুটে যান এলাকায়। দরিদ্রদের নানাভাবে সহযোগিতার পাশাপাশি সামাজিক কাজেও বেশ ভূমিকা রেখে ইতোমধ্যে তিনি সকলের প্রশংসা কুড়িয়েছেন ও এলাকায় সাড়া জাগিয়েছেন। 

নিজ এলাকা পুইছড়িসহ গোটা বাঁশখালীকে তিনি ফুলের মত সাজাবার লক্ষ্য নিয়ে কঠুর শ্রম দিয়ে যাচ্ছেন। তাঁর সে আকাঙ্খা পূরণে এলাকাবাসির প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ সমর্থন রয়েছে।

তিনি গ্রাম পুইছড়ি জ্ঞান চর্চা পাঠাগার এর উপদেষ্টা মন্ডলির সদস্য। বাঁশখালী আইডিয়াল স্কুলের পরিচালনা পর্ষদের সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন তিনি।

এদিকে তিনি চট্টগ্রাম স্যার আশুতোষ সরকারি কলেজে সহকারি অধ্যাপক পদে পদোন্নতি পাওয়ার খবর নিজ এলাকায় ছরিয়ে পড়লে আনন্দের বন্যা বয়ে যায়। বিভিন্ন সামাজিক,সাংস্কৃতিক সংগঠন তাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য