Recents in Beach

Google Play App

বাঁশখালী উপজেলা ও পৌরসভা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ২১ আগষ্ট গ্রেনেট হামলায় নিহত শহীদের স্মরণে সভা অনুষ্ঠিত

মোহাম্মদ এরশাদঃ
বাঁশখালী উপজেলা ও পৌরসভা আওয়ামী লীগের  উদ্যোগে ২০০৪ সালের ২১ আগষ্ট গ্রেনেট হামলায় নিহত সকল শহীদের স্মরণে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

আজ ২১ আগষ্ট বাঁশখালী উপজেলা সংলগ্ন আলাওল ডিগ্রী কলেজ হল রুমে ২০০৪ সালের ২১ আগষ্টে গ্রেনেট হামলায় নিহত সকল শহীদের স্মরণে আলোচনা সভা পৌরসভা মেয়র আলহাজ্ব সেলিমুল হকের সভাপতিত্বে ও বাঁশখালী উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও বাহারছড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তাজুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন বাঁশখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ২নং সাধনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব মহিউদ্দিন চৌধুরী খোকা, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাঁশখালী উপজেলা চেয়ারম্যান সমিতির সভাপতি ও কালীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট আ ন ম শাহাদাত আলম,চাম্বল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মুজিবুল হক চৌধুরী, খানখানাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বদরুদ্দীন চৌধুরী, সরল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রশিদ আহমদ চৌধুরী,
শেখেরখীল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ইয়াছিন, চনুয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হারুনুর রশিদ, এ্যাডভোকেট তোফায়েল বিন হোছাইন, পৌরসভা আওয়ামী লীগ নেতা আকতার হোসাইন, বাঁশখালী উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা ভিপি শামসুল আলম, সাধনপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাদুর রশিদ, চট্টগ্রাম জজ কোর্টের এপিপি এডভোকেট রায়হান রনি চৌধুরী, গন্ডামারা আওয়ামী লীগ নেতা সিহাব উল সিকদার, 
৩নং খানখানাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক জসিম হায়দার, পৌরসভা যুবলীগের আহবায়ক হামিদুল্লা, ওলামালীগের সভাপতি মাওঃ আক্তার হোসাইন, উপজেলা যুবলীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক মাহামুদুর ইসলাম, বাঁশখালী পৌরসভা মহিলা যুবলীগের সভাপতি দেবী রুদ্র, সাবেক  কেন্দ্রীয় ছাত্র লীগের সদস্য মিজান সিকদার, বাঁশখালী উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাবেক সভাপতি প্রদীপ গুহ, উপজেলা ছাত্র লীগের সাবেক সহ-সভাপতি মিজানুর রহমান,সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ইমরুল হক চৌধুরী ফাহিম, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা ছাত্র লীগের সহ-সভাপতি নাঈম উদ্দীন মাহাফুজ,উপজেলা যুবলীগ নেতা খোরশেদ আলম, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক  যুগ্ম আহবায়ক আ ন ম ফারহাদুল আলম, পুকুরিয়া ইউনিয়ন ৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ আবদুচ সবুর,মিজানুর তালুকদার শাহিনুর ইসলাম বাহাদুর, সাজ্জাদ মোহাম্মদ শাউন,শাহে জিসান,শহিদুল ইসলাম, আতিকুর রহমান টিপু প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জনাব মহিউদ্দিন চৌধুরী খোকা  বলেন- 
স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধ্বংস  করতে বারবারই বেছে নিয়েছে আগস্ট মাসকে। ৭৫ এর পনেরই আগস্টের পর তারা বঙ্গবন্ধুর শেষ চিহ্ন মুছে ফেলতে ইতিহাসের জঘন্যতম ও ভয়াবহ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছিল ২০০৪ সালের ২১ শে আগস্টে। সেদিন অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে গিয়েছিলেন তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেত্রী ও আজকের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা। কিন্তু পৃথিবীর ইতিহাসে ভয়াবহ এই গ্রেনেট হামলায় নিহত হয়েছিলেন তৎকালীন মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতিসহ ২৪ জন।

ইতিহাসের জঘন্যতম ও ঘৃণিত এই হত্যাকাণ্ডের পরিকল্পনা করেছিলেন তৎকালীন বিএনপি-জামাত জোটের প্যারালাল গভর্নমেন্ট হাওয়া ভবনের প্রধান তারেক রহমান ও তার একান্ত সহযোগী তৎকালীন স্বরাষ্ট্রপ্রতিমন্ত্রী লুৎফর জামান বাবর । এই দুই কুলাঙ্গারসহ সকল জঙ্গীর আদালতের রায় দ্রুত কার্যকর করা হোক।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য