Recents in Beach

Google Play App

মোবারকের বিরুদ্ধে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ
গত ৩ অক্টোবর ‘দৈনিক হিমছড়ি’ পত্রিকার শেষ পৃষ্ঠায় প্রকাশিত “পথ শিশুদের আশ্রয় কেন্দ্র নির্মাণে বাধা, আশ্রয় কেন্দ্র হবেই-ডিসি” সংবাদটি আমার দৃষ্টিগোচর হয়েছে। এটি সম্পূর্ন মিথ্যা বানোয়াট ভিত্তিহীন। আমি এই মিথ্যা সংবাদের তিব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি। আসল ঘটনা হল, আমি প্রতিবাদকারী মোবারক আলী, আমার দাদা মৃত তাজুল মুল্লুক তৎকালীন সরকার বাহদুরের কাছ থেকে ৩৯/১৯৫২-৫৩ নং মূলে বন্দোবস্তি প্রাপ্ত আর,এস ২৬৭৮ নং দাগের তুলনা মূলক বি,এস ৩০৭২, ৩০৭৩ নং দাগের আন্দর, ০.২৭ একর জমি বিরোধীয়। উক্ত বিরোধীয় জায়গা নিয়ে কক্সবাজার জেলার যুগ্ম দায়রা জজ- ১ এর আদালতে ১৮১/১৯ বি,এস সংশোধনী মামলা চলমান। আমার পৈত্রিক খতিয়ানি জায়গার উপর জোরপূর্বক মাননীয় কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মহোদয় পথ শিশু আশ্রয় কেন্দ্র নির্মাণ কাজ বাস্তবায়ন করতে চাচ্ছেন। আমার খতিয়ানি জায়গায় আমার ঘর-বাড়ী উচ্ছেদ না করার মর্মে ০৪/০৮/১৯ইং তারিখ একখানা দরখাস্ত জেলা প্রশাসক বরাবরে দাখিল করি। আমার আবেদন আমলে না নিয়ে আমার খতিয়ানভুক্ত জায়গায় পৈত্রিক ঘর-বাড়ী উচ্ছেদ করে জোরপূর্বক কাজ চালিয়ে যাচ্ছিল। আমি উপায়ন্তর না দেখে বিভাগীয় কমিশনার, চট্টগ্রাম বরাবর উচ্ছেদ আপিলের মামলা করি, যাহার নং- ৯১/২০১৯ইং। বিভাগীয় কমিশনার, চট্টগ্রাম নালিশি জমিতে স্থাপনা বন্ধ রেখে বাদীকে ডেকে দরখাস্তটি নিস্পত্তির নির্দেশ দেন। চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনারের আদেশকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে জোরপূর্বক কাজ চলমান রাখে। আমি উপায়ন্তর না দেখে মহামান্য সুপ্রিমকোর্ট হাইকোর্ট ডিভিশনে একখানা রীট পিটিশন দাখিল করি, যাহার নং- ৯৯০৯/২০১৯ইং। উক্ত রীট পিটিশন আমলে নিয়ে গত ২৪/০৯/১৯ইং তারিখ মহামান্য হাইকোর্টের বিচারপতি জনাব মোঃ নজরুল ইসলাম তালুকদার ও জনাব এস,এম মনিরুজ্জামান এর ব্যাঞ্চে শুনানীক্রমে গত ০৪/০৮/১৯ইং তারিখে দায়েরী দরখাস্ত নিষ্পত্তি করার এবং নালিশি জমিতে স্থিতিবস্থা জারি রাখার আদেশ প্রচার করেন ও স্থাপনা নির্মাণ কাজ বন্ধের নির্দেশ দেন। মহামন্য হাইকোর্ট সুপ্রিম কোর্টের আদেশকে ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে উক্ত খতিয়ানি জায়গাকে সরকারী জায়গা বলে পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ করান, যাহা সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন। মাননীয় জেলা প্রশাসক মহোদয় পথ শিশুদের জন্য যে প্রকল্পটি হাতে নিয়েছেন সেটিকে আমি ব্যক্তিগত ভাবে সাদুবাদ জানাই। কিন্তু উক্ত প্রকল্পটি সরকারী কোন জায়গায় না করে আমার বন্দোবস্তি জায়গার উপরে জোরপূর্বক স্থাপন করার চেষ্টায় আমি হতবাক হয়েছি। আমি উক্ত প্রকল্পে কোন ধরনের বাঁধা সৃষ্টি করি নাই। আমি এমন চরম মিথ্যা বানোয়াট সংবাদের তিব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি। এই মিথ্যা সংবাদে কাউকে বিব্রান্ত না হওয়ার জন্য সবিনয় অনুরোধ জানাচ্ছি।
প্রতিবাদকারী
মোহাম্মদ মোবারক আলী

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য