Recents in Beach

Google Play App

সারা বাংলাদেশে সাংবাদিক হত্যা নির্যাতন মিথ্যা মামলার বিরুদ্ধে মানববন্ধন চট্টগ্রাম কেন্দ্রী শহীদ মিনারে।

ডেক্স নিউজঃ
সারা বাংলাদেশে সাংবাদিকদের উপর  হত্যা নির্যাতন মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে মানববন্ধন  গত শনিবার ১৬ মার্চ বিকেল ৪টায় বাংলা‌দেশ মফস্বল সাংবা‌দিক ফোরাম (বিএমএসএফ) চট্টগ্রাম জেলা ও চট্টগ্রাম সাংবাদিক কল্যান এসোসিয়েশনের যৌথ উদ্যোগে এই মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।  সাংবাদিকরা যদি জাতীর বিবেক হয়,তাহলে সাংবাদিকদের স্বাধীনভাবে কাজ করার সুযোগ দিন,আইসিটির মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করুন, অন্যথায় ক‌ঠোর আন্দোল‌নের ডাক দেয়া হবে বলে হুশিয়ারী বক্তব্য দেন বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরম চট্টগ্রাম জেলার সভাপতি কেএম রুবেল ।  মানববন্ধনে ্ে  সাংবাদিক   সংগঠনের বিভিন্ন নেতৃ বৃন্দ ও

গণমাধ্যম  কর্মিরা  উপস্থিত  ছিলেন ।

বিএমএসএফ চট্টগ্রাম জেলার সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউল করিম রাজুর সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন বিএমএসএফ চট্টগ্রাম জেলার সভাপতি কে এম রুবেল,যুগ্ম সম্পাদক জুনায়েদ হাসান,   যুগ্ম সম্পাদক মুহাম্মদ মহিউদ্দিন  যুগ্ম সম্পাদক মোঃ হোসেন, সহ-সভাপতি মো; হাফিজ,দপ্তর সম্পাদক মোঃআশ্রাফ ও আগত অন্যান্য সাংবা‌দিকবৃন্দরা।মানববন্ধনে সাংবাদিক নেতারা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহা‌রের জন্য সং‌শ্লিষ্ট কর্তৃপ‌ক্ষের কাছে দা‌বি জা‌নান।

মানববন্ধনে অংশ নিয়ে সাম্প্রতিক  বাশঁখালীতে আইসিটি মামলা সহ দুইটি মিথ্যা মামলার শিকার দৈনিক আলোকিত সকালের  চট্টগ্রাম  করেসপন্ডেন্ট  মুহাম্মদ মহিউদ্দিন   যুগ্ম সম্পাদক  বিএমএসএফ চট্টগ্রাম জেলা । তার সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বলেন সাংবাদিকরা গণমানুষের কথা বলে ।  জাতীয় উন্নয়নের সাংবাদিকদের অনেক অবদান রয়েছে ও বলে জানান। কলম সৈনিকের বিরুদ্ধে অহেতুক

 মিথ্যা  মামলা, হামলা নির্যাতন দিয়ে  জাতীর বিবেককে ধ্বংস  করা যাবেনা বলেও জানান । বাঁশখালীতে হেলাল  কর্তৃক নুরুউদ্দিনের ছেলে শিশু  ওয়াহিদের নির্যানের বিষয়টি থানায় লিখিত  অভিযোগের  ভিক্তিতে  সাংবাদিক মহিউদ্দিন গত ৫ /১১/১৮ইং তারিখ অনলাইন র্পোটালে নিউজ করেন। এর আগে আগে অন্যান্য সংবাদ কর্মীরা

  অনলাইন র্পোটালে নিউজ করেন, সংবাদ প্রতিদিন,এবং পটিয়া অনলাইন নিউজ । বাদির থানায় লিখিত অভিযোগের ভিক্তিতে যেকোন সাংবাদিক নিউজ করলে তাকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দেওয়া যায় কিনা বাশঁখালী  থানা অফিসার  কামাল হোসেন থেকে  জানতে চাইলে তিনি  সঠিক কোন ব্যখ্যা দেননি। এতদিন পরে কেন মামলা  দেওয়া হলো সে বিষয়ে  জানতে চাইলে সে  প্রশ্ন  অধরা।

মুহাম্মদ মহিউদ্দিন আর ও বলেন আমার বিরুদ্ধে যে  দুইটি মামলা দায়ের করা হয়েছে তা সম্পুর্ন ভিত্তিহীন বানোয়াট ।উল্লেখ্য তিনি গত ২৭/২/১৯ তারিখে মারামারির কাল্পনিক ঘটনা সাজিয়ে এবং  ১৪ মার্চ ২০১৯ তারিখে বাঁশখালী থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলার শিকার হন। এই মামলার বাদী হেলাল উদ্দিন একজন ভুমিদস্যু, নামে বেনামে খতিয়ান সৃজন করে জায়গা জমি দখলের অভিযোগ রয়েছে ।  হেলাল উদ্দিন টাকার জোরে প্রভাব কাটিয়ে কাল্পনিক ঘটনা জম্মদিয়ে থানায় একের পর মিথ্যা মামলা  করে যাচ্ছে বলে জানান মহিউদ্দিন এবং তার পরিবারের বিরুদ্ধে । এসব বিষয় নিয়ে হেলালের বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি পত্রিকায় নিউজ হয়।সাংবাদিক মহিউদ্দিন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আকুল আবেদন করেন  আর যেন গায়েবী মামলার শিকার না হন সে এবং তার পরিবার । এসব  ভুমিদস্যু কে চিহ্নিত  করে আইনের মুখোমুখি করার  জন্য প্রশাসনের সংশ্লিষ্ট কর্তৃ পক্ষের দৃষ্টি কামনা  করেন ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য