Recents in Beach

Google Play App

আন্তর্জাতিক স্বাক্ষরতা দিবসে সম্মাননা স্মারক পেলেন সাংবাদিক জসীম উদ্দীন

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ
চট্টগ্রাম বাঁশখালীর পুঁইছড়ি ইউনিয়নের  প্রেমবাজার কে,এস  স্কয়ারে অনুষ্ঠিতব্য অতিরিক্ত কর কমিশনার রোটারিয়ান পিপি সামিনা ইসলামের সভাপতিত্বে ও রোটারি জেলা ডেপুটি গভর্নর রোটারিয়ান মুবিনুল হক মুবিনের সার্বিক তত্ববধানে ও সঞ্চালনায় আজ ৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ মঙ্গলবার সকাল ৯ টায় উক্ত অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে নিরক্ষরতা দূরীকরণে সাংবাদিকতা পেশায় অনন্য অবদান রাখার প্রত্যাশায় সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয় বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম বাঁশখালীর শাখার সাধারণ সম্পাদক, চট্টগ্রাম জজ কোর্টের শিক্ষানবিশ আইনজীবী, জনপ্রিয় অনলাইন টেলিভিশন সিপ্লাস টিভি ও জাতীয় দৈনিক মানবকন্ঠ পত্রিকার বাঁশখালী প্রতিনিধি সাংবাদিক জসীম উদ্দীনকে।

সাংবাদিকতার অভিজ্ঞতা প্রকাশ করে তরুণ লেখক জসীম উদ্দীন বলেন, সাংবাদিকতা হচ্ছে একটি মহৎ পেশা, সেই সাথে একটি জাতির দর্পণ। একজন সাংবাদিক মানে একটি রাষ্ট্রের  বিবেক। এই মহৎ পেশাকে টিক রাখতে হলে বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতার কোন বিকল্প নাই।

সমাজ ধ্বংসকারী মাদকাসক্ত, অন্যায়কারী, জুলুমবাজ ও সমাজের জনদুর্ভোগ সৃষ্টির বিরুদ্ধে সর্বদা নীতি-নৈতিকতা ঠিক রেখে আমাদের সাংবাদ প্রচার করতে হবে। হয়ত এই পেশায় নতুন নতুন প্রতিনিয়ত সৃষ্টি হবে শত্রুতা সব কিছু উপেক্ষা করে সামনে এগিয়ে যেতে হবে। আজ এই দিনে সম্মানন স্বারক পেয়ে নিজেকে আগামী দিনের অনুপ্রেরণা যোগাবে।

এতে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, সাবেক কম্বারল্যান্ড স্পোর্টস কলেজ লন্ডনের প্রফেসর জামাল উদ্দিন চৌধুরী। অতিরিক্ত কমিশনার টেক্সেস অফিস রোটারি ক্লাব অব চিটাগাং রোটারিয়ান সামিনা ইসলাম।
প্রোগ্রাম কো-অর্ডিনেটর রোটারি ক্লাব চিটাগং আপটাউন ও ডেপুটি গভর্নর রোটারিয়ান মুবিনুল হক মুবিন। রোটারি ক্লাব অব চিটাগাং খুলশীর প্রেসিডেন্ট রোটারিয়ান দিদার, পিপি সামুনুল ইসলাম, রোটারিয়ান আমরান মিয়া, রোটারিয়ান আশফাকুজ্জমান। সাংবাদিক শাহ মোহাম্মদ শফি উল্লাহ,সাংবাদিক জসীম উদ্দীন।

উক্ত অনুষ্ঠানে অত্র এলাকার কৃতি তরুণ বাংলাদেশ ফুটবল  রেফারি নুরুল আমিন, তরুণ কর্পোরেট ব্যক্তিত্ব গোলাম কিবরিয়া,সুলতানুল আনিম চৌধুরী, তরুণ আইনজীবি রায়হান সোবহান, স্বপ্নচুড়ার সভাপতি ফোরকান এলাহী সহ অনেকে সম্মাননা প্রদান করা হয়, যাতে তারা সমাজে নিরক্ষরমুক্ত করার জন্য উৎসাহবোধ করেন।

উক্ত অনুষ্ঠানে সবার মাঝে খাবার বিতরণ করা হয় সেই সাথে বস্ত্র হিসাবে গেঞ্জি এবং লুঙ্গি প্রদান করা হয়। 
অনুষ্ঠান শেষে এক বর্ণাঢ্য র‍্যালী অনুষ্ঠিত হয়।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য