Recents in Beach

Google Play App

বাঁশখালী খানখানাবাদে আওয়ামী লীগের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত

মোহাম্মদ এরশাদঃ
চট্টগ্রাম জেলার বাঁশখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী এমপির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র ও পৌর মেয়র মুক্তিযুদ্ধা শেখ সেলিমুল হক চৌধুরীর উপর হামলা ও মিথ্যা মামলা, বাঁশখালী উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি অধ্যাপক তাজুল ইসলামসহ ২৬ জনের বিরুদ্ধে  ষড়যন্ত্র মূলক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

শুক্রবার ৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ বিকাল ৩ টা থেকে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা খানখানাবাদ রায়ছটা সেন্টার পুকুর পাড় পরিষদ বাজার চত্বরে অনুষ্ঠিত হয়। বিকাল ৩ টা থেকে খানখানাবাদ ইউনিয়ন এর বিভিন্ন ওয়ার্ড থেকে মিছিলে মিছিলে সেন্টার পুকুর পাড় ইউনিয়ন পরিষদ মাঠে সমবেত হয় তারপর সকলে মিলে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে সেন্টার পুকুর পাড় পরিষদ বাজার চত্বরে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
খানখানাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জসিম হায়দার এর সন্ঞ্চালনায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম আইন কলেজের সাবেক ভিপি শামসুল আলম,প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী যুব লীগের সদস্য গাজী জাহেদ আকবর জেবু,খানখানাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট সেলিম উদ্দিন,ইউপি সদস্য মোহাম্মদ নাছির উদ্দীন,বাঁশখালী উপজেলা ছাত্র লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফৌজুল মুবিন,বাঁশখালী উপজেলা ছাত্র লীগের সাবেক দফতর সম্পাদক ও চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মোহাম্মদ  শাহাজাহান সম্রাট।

এতে আরো উপস্থিত ছিলেন, খানখানাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী, মোঃ মেরশেদুল আলম, খানখানাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের ১নং প্যানেল চেয়ারম্যান ও খানখানাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক,কবিল আমিন জন্টু, ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক  ইউপি সদস্য মেম্বার হাফেজ আহমদ,আবুল কালাম,৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মো মুবিন, ৮নং ওয়ার্ড সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, ১নং ওয়ার্ড সাধারণ সম্পাদক মেম্বার অজি আহমেদ, ২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ শামসুল আলম, ৬নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ হারুন, ৫নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল কাদের,৩নং খানখানাবাদ আওয়ামী যুবলীগ নেতা বোরহান উদ্দিন কাজল,আবু সুফিয়ান,মোঃ জাবেদ,রিয়াজ,
খানখানাবাদ ইউনিয়ন ছাত্র লীগের সভাপতি মোঃ আরিফুল ইসলাম,সাধারণ সম্পাদক ইকরামুল হক,সাংগঠনিক সম্পাদক ফখরুদ্দিন,ছাত্রলীগ নেতা রাকিব সহ আওয়ামী, যুব লীগ ও ছাত্র লীগের বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ।
প্রতিবাদ সভায় বক্তারা বলেন, আলহাজ্ব মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী এমপি নির্বাচিত হওয়ার পর বাঁশখালীকে উন্নয়নের মাধ্যমে বদলে দিয়েছেন। অবহেলিত উপকূলীয় এলাকা খানখানাবাদ ইউনিয়নে বেড়িবাঁধ নির্মান করে বন্যার কবল থেকে রক্ষা করেছেন, অন্ধকারে বসবাসকারী মানুষকে বিদ্যুৎ সম্প্রসারণ করে আলোকিত করেছেন। এই উন্নয়নে হিংসাপরায়ণ হয়ে এমপির বিরুদ্ধে একটি কুচক্রী মহল ষড়যন্ত্রের মিশন নিয়ে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার নেমেছেন।  বাঁশখালীর সাধারণ জনগণ এই ষড়যন্ত্রকে গ্রহণ করছেনা বলে তারা বাঁশখালীর বাহিরে গিয়ে এই ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। কুচক্রী মহলের সাথে যুক্ত হয়েছে কথিত কিছু মুক্তিযুদ্ধা। আমরা মুক্তিযুদ্ধাদের সম্মান করি তবে পক্ষপাতীত্ব মূলক ষড়যন্ত্র কে ধিক্কার জানাই।প্রতিবাদ সভায় বক্তারা আরো বলেন, এমপি মোস্তাফিজ উড়ে এসে জুড়ে বসে নাই, ৩০ বছর ধরে ছাত্র লীগ ও আওয়ামী লীগের রাজনীতি করে এসেছে। বঙ্গবন্ধুর মানসকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা না বুঝে না চিনে এপনপি নির্বাচনে মনোনয়ন দেয় নাই।এমপি মোস্তাফিজের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র মানে আওয়ামী রাজনীতির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র,জননেত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র। এমপি মোস্তাফিজ কে বাসায় গিয়ে গুলি করে মেরে শেখ হাসিনার কাছে নিয়ে যাওয়ার প্রকাশ্যে হুমকি দিয়ে সিরু বাঙালী দেশে প্রতিষ্ঠিত প্রচলিত আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন করেছেন। অবিলম্বে হুমকি দাতার বক্তব্য প্রত্যাহার করে নিতে হবে এবং পৌর মেয়র মুক্তিযুদ্ধা শেখ সেলিমুল হক চৌধুরী ও বাঁশখালী উপজেলা আওয়ামী যুব লীগের সভাপতি অধ্যাপক তাজুল ইসলাম সহ ২৬ জনের বিরুদ্ধে আনিত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করে নিতে হবে। অন্যতায় বাঁশখালী উপজেলার আওয়ামী লীগ, যুবলীগ,ছাত্র লীগ বাঁশখালীবাসাীকে নিয়ে কঠোর আন্দোলনে মাঠে নামবে বলে ব্যক্ত করেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য