Recents in Beach

Google Play App

বাহারছড়ায় দিলুর বাপের জমি জোরপূর্বক দখল সহ মারধরের অভিযোগ

মোহাম্মদ এরশাদঃ
বেদার মিয়া মারা যাওয়ার পর তার সম্পত্তির হাল ধরে মেয়ে দিলু। সেই থেকে দিলু তার বাপের বাড়িতে অবস্থান করে পৈত্রিক সুত্রে ভোগদখল করে আসছিল। দিলুআরা বেগম (৫৫) চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার ৪নং বাহারছড়া ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড পশ্চিম বাহারছড়ার মৃত বেদার মিয়ার মেয়ে। দিলু অসহায় মহিলা হওয়ায় দীর্ঘদিন থেকে তার পৈত্রিক সম্পত্তির উপর কুনজর দিয়ে আসছে সুযোগসন্ধানী আপন জেডাতো ভাই  আবুল হোসেন (৬৫) ও হাসান মুরাদ (৬০) দ্বয়। প্রায় সময় জায়গা সম্পত্তি অবৈধ দখলকে কেন্দ্র করে দিলুআরা ও তার বোন রেহানা বেগম (৫০)কে মারধর সহ নির্যাতন করছে। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১২ জুলাই দিলোর পৈত্রিক জমিতে তার ২ জেডাতো ভাই সহ রাশেদ (২৪), হেলাল (৪০), খোরশেদ (৩৫), জাসেদ (১৮), শোয়েব (২৫), বেলাল (৩২) ও জালাল (৩৫) গন দিলোর বাপের জমিতে অবৈধভাবে দখলপূর্বক দোকান নির্মাণ সহ গাছ কেটে নেয়। তাদের এই অবৈধ কার্যকলাপে বাঁধা দিলে মারধর সহ নির্যাতনের অভিযোগ উঠে। এই ঘটনায় দিলুআরা বাদী হয়ে জড়িতদের বিরুদ্ধে বাঁশখালী থানায় অভিযোগ দায়ের করেন বলে জানা যায়।

ভুক্তভোগী দিলুআরা বেগম জানায়, তার পিতা বেদার মিয়া মারা যাওয়ার পর তার পৈত্রিক বাড়ি জনশূন্য হয়ে পড়ে। তাই বাপের বাড়ির প্রদীপ জ্বালিয়ে রাখার জন্য দিলু সেখানে অবস্থান নেন। দিলু তার বাপের জায়গা সম্পত্তি ভোগদখল করে আসছিল। তখন থেকে তার ২ আপন চাচা সহ তাদের ছেলেরা দিলুর বাপের জায়গা সম্পত্তি দখলে নিতে বিভিন্ন পাইতারা চালিয়ে আসছে। এই বিষয় গত ৭ জুলাই স্থানীয় ভাবে শালিসি বৈঠকে তাদেরকে নিষেধ করা হয়। এরপর থেকে অপরাধীরা আরো ক্ষিপ্ত হয়ে মানষিক নির্যাতন সহ বিভিন্ন হুমকি ধমকি দিয়ে আসছে। এরই প্রেক্ষিতে গত ১২ জুলাই তার ২ চাচা ও তাদের ছেলেরা মিলে দিলুর বাপের জমির উপর দোকান নির্মাণ সহ অনুমানিক ৩০ হাজার টাকার গাছ কেটে নিয়ে যাওয়ার সময় বাঁধা দিলে দিলুআরা সহ তার বোন রেহেনা বেগমকে মারধর করে। পরে তারা চিকিৎসা সেবা গ্রহণ করে বলে জানান।

এই ব্যাপারে বাঁশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ রেজাউল করিম মজুমদার বলেন, এ ঘটনায় দিলোআরা বাদী হয়ে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। এছাড়াও বিষয়টি তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য