Recents in Beach

Google Play App

ওমানে সততার নজির স্থাপন করলেন বাঁশখালীর নেজাম

মোহাম্মদ বেলাল উদ্দিনঃ
মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ওমানে কুড়িয়ে পাওয়া একটি দামি ব্রান্ডের মোবাইল সেট ফিরিয়ে দিয়ে সততার বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন প্রবাসী মো. নেজাম উদ্দিন।

সূত্রে জানা যায়, গত ৭ ফেব্রুয়ারি ওমানের আল সোয়াইক নামক স্থানের আল কাদরা স্টেশনে একটি স্যামসাং মোবাইল কুড়িয়ে পান নেজাম। ভাবতে থাকেন কুড়িয়ে পাওয়া মোবাইলটা কিভাবে মালিকের হাতে ফিরিয়ে দেওয়া যায়। তিনি মোবাইলের মালিকের মোবাইল নাম্বার চিহ্নিত করে তাকে কল দেন। মোবাইলের মালিক তার চাকরি নিয়ে ব্যস্ত থাকায় আসতে পারেননি। তাই প্রবাসী নেজাম ২০কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে মোবাইলটা মালিকের কাছে পৌঁছে দেন।

নেজাম উদ্দিনের বাড়ি বাঁশখালী উপজেলার ছনুয়া ইউনিয়নের স্বাম্বলী পাড়া গ্রামে। তিনি স্বাম্বলী পাড়ার মো. আলী সওদাগরের ছেলে।


নেজাম উদ্দিন মুঠোফোনে বাঁশখালী নিউজকে বলেন, ‘আমি কর্মস্থলে যাওয়ার পথে রাস্তায় একটি মোবাইল কুড়িয়ে পাই। এরপর মোবাইলের মালিককে ফোন করলে তিনি আমার ঠিকানায় আসতে পারেনি কাজের চাপে। তাই আমি ওনাকে ২০কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে গত রোববার (৯ ফেব্রুয়ারি) মোবাইলটি পৌঁছে দিই।’

কুড়িয়ে পাওয়া মোবাইলের দাম কত হবে জানতে চাইলে প্রবাসী নেজাম বলেন, ‘মোবাইলটার দাম আনুমানিক সাড়ে ১৭ হাজার টাকা হতে পারে। আসলে দামটা বড় কথা নয়। ওনার মোবাইলে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস্ ছিলো। ওনার মোবাইল ওনার জন্য একটা মূল্যবান সম্পদ। আমি সহি-সালামতে পৌঁছে দিতে পেরেছি এটাই বড় কথা।’’

অপরদিকে হারানো মোবাইল ফিরে পেয়ে খুশিতে আত্মহারা মোবাইলের মালিক প্রবাসী মো. জসীম উদ্দিন। তার বাড়ি ভোলার লালমোহন উপজেলায়।

মোবাইলের মালিক প্রবাসী মো. জসীম উদ্দিন বাঁশখালী নিউজকে মুঠোফোনে বলেন, ‘হারানো মোবাইলটা ফিরে পাবো; এ আশা কল্পনার বাইরে ছিল। নেজাম ভাইকে উনার সততার পুরস্কারস্বরূপ কিছু টাকা বকশিশ দিতে চাইলেও তিনি নেননি। আপ্যায়ন করাতে চাইলেও তিনি ‘না’ বললেন।’’

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য