Recents in Beach

Google Play App

রাত পোহালেই বিপিএল সিজন-৬ এর যাত্রা শুরু হবে

বিএন ডেস্কঃ
গত সিজনগুলোর প্রেক্ষাপটে এবারের বিপিএল বেশ ভালোই চাকচিক্য আনতে সক্ষম হয়েছে। প্রথমবারের মত এবার খেলতে এসেছে এবি ডি ভিলিয়ার্স, স্মিথ, ওয়ার্নার, লামিচানে, মালান বা হেলসের মত তারকারা। আগামীকাল রংপুর বনাম চট্টগ্রামের ম্যাচের মাধ্যমেই বিপিএল সিজন-৬ এর যাত্রা শুরু হবে। 

এবারের বিপিএলে বেশ কিছু চমক আছে। স্মিথ-ওয়ার্নার বা ভিলিয়ার্স খেলতে আসবে তার থেকেও বড় চমক দিলেন রাজশাহী কিংস। তাদের ক্যাপ্টেন এবার মেহেদী মিরাজ। তরূন বয়সে এমন দায়িত্ব ভবিষ্যতে কাজে দিবে মিরাজের। আর এমন স্বীদ্ধান্তের জন্য রাজশাহীর ম্যানেজমেন্টকে ধন্যবাদ। লোকাল প্লেয়ারদের প্রায়োরিটি পাওয়া উচিত। 

৭টি দলের ৭জন ক্যাপ্টেন হচ্ছেনঃ সাকিব, মাশরাফী, মুশফিক, রিয়াদ, মিরাজ এবং স্মিথ ও ওয়ার্নার। কুমিল্লায় যদিও তামিম ক্যাপ্টেন ছিলো কিন্তু তামিম নিজেও ক্যাপ্টেন্সি পছন্দ করে না বলেই স্মিথকে ক্যাপ্টেন করা৷ গত সিজনে নাবী বা মালিক থেকে হাজারো গুনে ভালো স্মিথকে কুমিল্লা ক্যাপ্টেন হিসেবে পাওয়া। 

একটি টুর্নামেন্ট বা লীগ সুন্দর হয়ে প্রতিটা দলে ব্যালেন্সড স্টার প্লেয়ার থাকলে বাট সবসময়ই ঢাকা ও রংপুর স্টারে ভরা থাকে। সাথে কুমিল্লাও কিছুটা পাল্লা দেয়। তবে এবার সিলেটও যথেষ্ঠ ভালো টিম করেছে। তবে রাজশাহী এবং চিটাগাং অতটা সুন্দর টিম বানাতে পারে নি।

অধিক সন্ন্যাসীতে গাজন নষ্ট এমন একটি প্রবাদ আছে বাংলায়। তার প্রতিফলনই যেন ঢাকা ডায়নামাইটস। ঢাকাতে প্রচুর হার্ডহিটার প্লেয়ার এবং অলরাউন্ডার এর ফুলঝুরি রয়েছে। কিন্তু রনি তালুকদার আর নাইম শেখ দুজন মাত্র প্রফেশনাল ওপেনার রয়েছে। যার মধ্যে নাইমের খেলার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। কিন্তু নারিন বা জাজাই দিয়ে কাজ চালিয়ে দিবে ঢাকা। অপরপক্ষে কুমিল্লাতে ওপেনার ব্যাটসম্যানদের অভাব নেই। তামিম, কায়েস, লুইস, শামসুর, বিজয় ৫জন ওপেনার ব্যাটসম্যান। মোহাম্মদ শাহজাদ ছাড়া চিটাগাং টিমেও নেই প্রফেশনাল ওপেনার। 

রংপুর টিমে একইসাথে খেলছেন মাশরাফি, শফিউল, ফরহাদ রেজা, আবুল হাসান। কিন্তু এখান থেকে ৪জনেই চান্স পাওয়া খুব টাফ। বিপিএলের মতো আসরে এই চারজনের একজনও বেঞ্চে থাকুক তা নিশ্চয়ই চাইবে না কেউ। ঠিক তেমনি সিলেটেও একই অবস্থা- তাসকিন, আল আমিন, এবাদত বা মেহেদী রানা চারজনে তাসকিন আর আল আমিনরাই চান্স পাবে অথচ এই এবাদত কতো হাইপ তুলে টাইম লাইটে ছিলো বা রানাও আন্ডার নাইন্টিনে মিরাজ-শান্তদের সাথে ভালোই পারফর্ম করেছিলো। কিন্তু এদেরকেউ বেঞ্চ গরম করতে হবে। 

এগুলা জাস্ট কয়েকটি উদাহরণ। একই ক্যাটাগরি এত প্লেয়ার নিয়ে শুধু শুধু বেঞ্চে বসিয়ে রেখে লাভ কি। বেক আপ রাখতে হয় মানলাম কিন্তু একদলে এতজন বাট অন্যদলে এই ক্যাটাগরিতে প্লেয়ার সংকট।

তারপরেও এবার বিপিএলে চট্টগ্রামের খালেদ-নাইম, ঢাকার অনিক, খুলনার অংকন-শান্ত, রাজশাহীর জাকির ও সিলেটের আফিফ-হৃদয়দের উপর নজর থাকবে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য