Recents in Beach

Google Play App

সাংবাদিক নির্যাতন করে পূর্বদেশ সম্পাদক এমপি হওয়ার স্বপ্ন দেখতে পারেন না : সিইউজে নেতাদের হুশিয়ারি

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ
চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের(সিইউজে) নেতৃবৃন্দ হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, দৈনিক পূর্বদেশ পত্রিকায় সাংবাদিকদের নির্যাতন করে, কথায় কথায় চাকরিচ্যুতির ভয় দেখিয়ে সংসদ সদস্য হওয়া যায় না। পূর্বদেশ সম্পাদক মজিবুর রহমান সাংবাদিকদের সঙ্গে ভাল আচরণ না করলে তার এমপির হওয়ার স্বপ্ন চট্টগ্রামের সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ বানচাল করে দেবে। পূর্বদেশের একজন সাংবাদিক, কর্মচারী ও অফিস সহকারীকে অন্যায়ভাবে চাকরিচ্যুত না করার জন্য হুশিয়ারি দেন সিইউজে নেতৃবৃন্দ।

গতকাল বুধবার রাত আটটায় দৈনিক পূর্বদেশ ইউনিটে প্রয়াত সজ্ঞয় মহাজন কল্লোলের শোকসভা ও কর্মরত সাংবাদিকদের উপর পূর্বদেশ কর্তৃপক্ষের হয়নারি, নির্যাতন ও চাকরিচ্যুতির হুমকির প্রতিবাদে আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশে এসব কথা বলেন সাংবাদিক নেতারা।
দৈনিক পহৃর্বদেশ ইউনিট প্রধান রতন কান্তি দেবাশিষের সভাপতিত্বি সভায় বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি নাজিমুদ্দীন শ্যামল, সাধারণ সম্পাদক হাসান ফেরদৌস, বিএফইউজে-বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সহ-সভাপতি শহীদ উল আলম, সাবেক সহ-সভাপতি ও পূর্বদেশের যুগ্ম সম্পাদক আবু তাহের মোহাম্মদ, বিএফইউজের যুগ্ম মহাসচিব মহসিন কাজী, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সবুর শুভ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আহমেদ কুতুব, টিভি ইউনিট প্রধান অনিন্দ্য টিটো, পূর্বদেশের ভারপ্রাপ্ত বার্তা সম্পাদক আবু মোশাররফ রাসেল, পূর্বদেশ ইউনিটের সাংবাদিক ইউসুফ সবুর, সুরেশ কুমার দাশ, নুর মোহাম্মদ টিপু, আলাউদ্দিন হোসেন দুলাল, আবীর চক্রবর্তী, এমএ হোসাইন, ইকবাল হোসেন প্রমুখ। সভা পরিচালনা করেন ডেপুটি ইউনিট প্রধান জীবক বড়ূয়া।

সভায় সিইউজে সভাপতি নাজিমুদ্দীন শ্যামল বলেন, পূর্বদেশ সম্পাদক মজিবুর রহমানের অতীত ইতিহাস আমরা সবাই জানি। তিনি যোগ্যতা না থাকা সত্বেও শুধুমাত্র অর্থলগ্নি করার কারণে সম্পাদক বনে গেছেন। তিনি পূর্বদেশে কর্মরত সাংবাদিকদের সঙ্গে অশোভন আচরণ করছেন। অনেককে গালাগালও দিয়েছেন। এ সমাবেশ থেকে পূর্বদেশ সম্পাদককে হুশিয়ার করে দিতে চাই। যারা ট্রেড ইউনিয়ন করে তারাও গালি দিতে জানেন। আপনি আপনার বদ অভ্যাস পরিত্যাগ করে সাংবাদিকদের সঙ্গে সুন্দর ও ভাল আচারণ করুন তাহলে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ থেকে সহযোগিতা পাবেন। আপনি ১৫ বছর সাংবাদিকতা না করেও সম্পাদক হয়েছেন-সেটাও আমরা জানি। আপনার বদ অভ্যাস পরিত্যাগ না করলে আপনার বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নিবে সাংবাদিক ইউনিয়ন।

সাধারণ সম্পাদক হাসান ফেরদৌস বলেন, মজিবুর রহমান সাহেব আপনি সিআইপি হন আর ভিআইপি হন তাতে সাংবাদিক ইউনিয়নের কিছু আসে যায় না। আপনি আর কোন সাংবাদিকদের সঙ্গে অশোভন আচরণ করবেন, কাউকে চাকরিচ্যুতি করবেন। আপনার এমপি হওয়ার সবুজ সংকেত আমরা লাল সংকেতে পরিনত করে দেব। আপনি অষ্টম ওয়েজবোর্ড দিচ্ছেন না, অনেককে এখনো নিয়োগপত্র দেননি। অনেকের বেতন বন্ধ করে দিচ্ছেন। এসব অপকর্ম বন্ধ করুণ। পূর্বদেশে আমরা মালিকপক্ষের আর কোন অরাজতা দেখতে চাই না, সূত্র চট্টগ্রাম সময় ডটকম।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য