Recents in Beach

Google Play App

করোনা ঝুঁকি নিয়ে নিয়মিত রোগীর সেবা দিয়ে যাচ্ছেন ডাঃ এজাজ

মোহাম্মদ এরশাদঃ
করোনা ভাইরাসের আতংকে দেশের বিভিন্ন স্থানে যখন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালের অনেক চিকিৎসক  নানা অজুহাতে চেম্বার করা ছেড়ে দিয়ে স্বেচ্ছায় হোম কোয়ারেন্টাইনে চলে গেছেন  ঠিক সেই করুন মুহুর্তে  বাঁশখালীর সাধনপুর কালী বাড়ি মোড এলাকায় নিজ চেম্বারে নিয়মিত চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছেন বাংলাদেশ গ্রাম ডাক্তার ঐক্য কল্যাণ সোসাইটির
বাঁশখালী শাখার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম জেলা সদস্য ডাঃ এজাজ।করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সরকার নির্দেশনা জারি করেছে। সরকারি সাধারণ ছুটি ও দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে লকডাউন ঘোষনা করা হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে বাঁশখালী উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশের পাশাপাশি মাঠে যৌথভাবে কাজ করছেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সদস্যরাও।নিজ উদ্যোগে চেম্বারে আসার রোগীদের হাতে তুলে দিচ্ছেন  করোনা প্রতিরোধে সচেতনা মুলক প্রচারপত্র।এমন সংকটময় মুহূর্তে বিশেষজ্ঞ অনেক ডাক্তার যারা বাঁশখালী উপজেলার বিভিন্ন ফার্মেসি বা ড্রাইয়গনিট্রিক সেন্টারে চিকিৎসা সেবা দিতেন তাদের তাদের অধিকাংশই চিকিৎসা সেবা দেয়া বন্ধ করে দিলেও  ব্যতিক্রম কয়েকজনের মধ্যে ডাঃ এজাজ অন্যতম।সাংবাদিকদের সাক্ষাতে ডাক্তার মোঃ এজাজ বলেন, মহামারী প্রতিরোধ করা এটাও একটি মুক্তিযুদ্ধ,ডাক্তাররা হলেন এই যুদ্ধের সৈনিক, যুদ্ধের মাঠ ছেড়ে কোনো সৈনিক পালিয়ে যায়না বিজয় না হওয়া পর্যন্ত। তিনি আরও বলেন আমি এই উপজেলার মানুষের সুসময়ে ছিলাম,তাদের ছেড়ে অসময়ে পালিয়ে যাবো তা হতে পারেনা,এটা মানবতার লঙ্ঘন, সুসময়েও ছিলাম অসময়েও থাকবো,তিনি আরও বলেন আমাদের ডাক্তার এশিশিয়াসনের কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক আমাদেরকে নির্দেশ দিয়েছেন নিজেকে নিরাপদে রেখে রুগীর চিকিৎসা সেবা দিয়ে যেতে, আমিও সেই হিসাবে রুগীর চিকিৎসা ও ঘরে থাকা সহ কিভাবে খাওয়া দাওয়া করবে এবংঅপ্রয়োজনী ঘর থেকে বের না হতে পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছি, প্রয়োজনে মোবাইলে চিকিৎসা নিতে রুগীকে বলে যাচ্ছি বলে তিনি জানান।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য