Recents in Beach

Google Play App

বাঁশখালীতে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে র‌্যালী ও আলোচনা সভা

মোহাম্মদ এরশাদঃ
 জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদৎ বার্ষিকী উপলক্ষ্যে বাঁশখালী উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে দিনব্যাপী কর্মসূচী গ্রহণ করা হয়। কর্মসূচীর শুরুতেই প্রত্যেক সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতকরণ এবং উপজেলা পরিষদ চত্বরে জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ, পরে কালো ব্যাজ ধারণ করে শিশু সমাবেশ ও শোক র‌্যালী অনুষ্ঠিত হয়।উপজেলা পরিষদ মাঠ থেকে শোক র‌্যালীটি বাঁশখালী বালিকা সরকারি বিদ্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়।

এরপর আলোচনা সভা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোমেনা আক্তারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাঁশখালীর সাংসদ আলহাজ্ব মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাঁশখালী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান চৌধুরী মোহাম্মদ গালিব সাদলী। বাঁশখালী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আল্ বশিরুল ইসলামের স্বাগত বক্তব্য রাখেন।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ইসতিয়াক আহমদের সঞ্চালনায় এসময় বক্তব্য রাখেন বাঁশখালী পৌরসভার মেয়র সেলিমুল হক চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আবদুল গফুর, বাঁশখালী থানা অফিসার ইনচার্জ রেজাউল করিম মজুমদার, বাঁশখালী উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান রেহেনা আক্তার কাজেমী, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আবু সালেক, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শ্যামলী দাশ, উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. ফয়সাল আলম, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আবুল হাশেম সিকদার মানিক, বাঁশখালী সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনোতোষ দাশ প্রমুখ।

এ সময় বক্তারা বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম না হলে বাঙালী জাতি কখনও স্বাধীনতার মুখ দেখতো না। তিনি সারাটা জীবন বাঙালী জাতির মুক্তির জন্য সংগ্রাম করেছেন। কিন্তু স্বাধীনতা বিরোধী চক্রের ষড়যন্ত্রে জাতির পিতাকে নির্মম ভাবে হত্যা করা হয়। বর্তমানে জাতির জনকের কন্যা মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এদেশে যে উন্নয়নের গণজাগরণ চলছে তাতে সরকারি বেসরকারি সকল শ্রেনীর মানুষের অংশগ্রহণে দেশ সমৃদ্ধশালী হবে এবং জাতির জনকের স্বপ্ন পূরণ হবে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য