Recents in Beach

Google Play App

রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তনে বিশ্ব সম্প্রদায়ের সহায়তা চান প্রধানমন্ত্রী

মিয়ানমারের বলপূর্বক বাস্তুচ্যুত নাগরিকদের বাংলাদেশ থেকে ফিরিয়ে নিতে দেশটির সরকারের ওপর চাপ অব্যাহত রাখতে ভিয়েতনামসহ বিশ্ব সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, ‘মিয়ানমারকে অবশ্যই এখান থেকে তাদের নাগরিকদের ফেরত নিতে হবে। তাদের প্রত্যাবর্তনে আমরা বিশ্ব সম্প্রদায়ের সহায়তা চাই।’
আজ বুধবার সকালে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন ভিয়েতনামের প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত ও পররাষ্ট্রবিষয়ক উপমন্ত্রী জুয়‍্যান কুউক দেজং। বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ আহ্বান জানান।
সৌজন্য সাক্ষাতের পর প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন। তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবর্তনে বাংলাদেশ মিয়ানমারের সঙ্গে একটি চুক্তি করেছে। কিন্তু এই চুক্তির বাস্তবায়নপ্রক্রিয়া বিলম্বিত হচ্ছে বলে প্রধানমন্ত্রী জানান। ইহসানুল করিম বলেন, সরকার রোহিঙ্গাদের অস্থায়ীভাবে অন্যত্র স্থানান্তরে একটি দ্বীপের উন্নয়ন করছে বলে প্রধানমন্ত্রী ভিয়েতনামের প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূতকে জানান।
প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম আরও বলেন, রোহিঙ্গাদের অবশ্যই তাদের নিজ দেশে ফেরত যেতে হবে বলে মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী। ভিয়েতনামের উপমন্ত্রী ১১ লাখ রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দেওয়ার জন্য শেখ হাসিনার ভূয়সী প্রশংসা করেন। ভিয়েতনামের প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত জুয়‍্যান কুউক দেজং বলেন, এটি এক বিশাল মানবিক কাজ। এটি বাংলাদেশের জন্য একটা বড় বোঝা। ভিয়েতনাম রোহিঙ্গা সংকটে বাংলাদেশের সঙ্গে সংহতির অংশ হিসেবে ৫০ হাজার মার্কিন ডলার অনুদান দেবে।
প্রধানমন্ত্রীকে আজারবাইজানের প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা
বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে পুনরায় নিযুক্ত হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন আজারবাইজানের প্রধানমন্ত্রী নভরুজ মামাদভ। আজ এক বার্তায় আজারবাইজানের প্রধানমন্ত্রী আশা প্রকাশ করেন, বাংলাদেশ ও আজারবাইজানের মধ্যে বিদ্যমান পারস্পরিক আস্থা ও সহযোগিতার সম্পর্ক দুই দেশের জনগণের কল্যাণে যৌথ প্রচেষ্টায় আরও জোরদার ও গভীর হবে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য