Recents in Beach

Google Play App

বৈলছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার জামালের উপর সন্ত্রাসী হামলা

মোহাম্মদ এরশাদঃ বাঁশখালী বৈলছড়ি ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য  মুহাম্মদ জামাল উদ্দীনের (৩৫) উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় আহত জামাল উদ্দীনকে প্রথমে বাশঁখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আশংকাজনক অবস্থায় তাকে চট্টগ্রাম চমেক হাসপাতাল প্রেরণ করে। এই ঘটনার প্রতিবাদে জামালের সমর্থকরা বাশঁখালীর প্রধান সড়কে বৈলছড়ি বাজারে বিক্ষোভ মিছিল ও টায়ার জ্বালিয়ে ব্যারিকেড সৃষ্টি করে যান চলাচল বন্ধ করলে পরবর্তীতে বাঁশখালী থানা পুলিশ গিয়ে তাদর সরিয়ে দেয়। এসময় সাময়িক যান চলাচল ব্যাহত হয়।

জানা যায়, বৈলছড়ি ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য  মুহাম্মদ জামাল আজ ২১ জানুয়ারি সোমবার দুপুর ১.৩০ টার দিকে তার নিজস্ব মৎস্য প্রজেক্ট থেকে ফেরার পথে পূর্ব বৈলছড়ি নুইন্যাপুকুর পাড় চৌমুহনী এলাকায় তার উপর হামলায় চালায় জনৈক মনসুর। এসময় তাকে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে মারাত্মক জখম কর । এখবর পাওয়ার পর স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে বাঁশখালী হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাক্তার মুনিরা ইয়াসমিন তাকে চমেক হাসপাতাল প্রেরন করে ।

এদিকে ইউপি সদস্য 
মুহাম্মদ জামালের উপর হামলার খবর ছড়িয় পড়লে তার সমর্থকেরা বাঁশখালীর প্রধান সড়কে বৈলছড়ি বাজার ব্যারিকেড দিয়ে যান চলাচল বন্ধ করে দেয় এবং প্রতিবাদ সমাবেশ করে । পরে খবর পেয়ে বাঁশখালী থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের সরিয়ে যান চলাচল স্বাভাবিক করে ।

এ ব্যাপারে বৈলছড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ কফিল উদ্দিন বাঁশখালী নিউজকে  জানান  ইউপি সদস্য মুহাম্মদ জামাল আজ দুপুর ১.৩০ টার দিকে তার নিজস্ব মৎস্য প্রজেক্ট দেখতে যায়, ফেরার পথে পূর্ব বৈলছড়ি নুইন্যাপুকুর পাড় চৌমুহনী এলাকায় আসলে তার উপর হামলায় চালায় জনৈক মনসুর ও তার দল মুহাম্মদ জামালের উপর এই হামলা চালায়, আমি হামলার খবর শুনার পর থানা পুলিশ ও প্রসাশনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানিয়ে অামি নিজে গিয়ে বিক্ষুদ্ধ জনতাকে শান্ত করি এবং আইন অনুযায়ী কঠিন বিচার হবে বলে আশ্বস্ত করি। পরবর্তীতে বিক্ষুব্ধ জনতা ব্যারিকেড সরিয়ে নেয়।এ ব্যাপারে ইউপি সদস্যর পরিবারের পক্ষ থেকে হামলাকারীদের বিরুদ্ধ মামলা করা হবে। এক সময় জামাল ও মনসুর একই নেতার রাজনীতি করলেও পরবর্তীতে সংসদ নির্বাচনে দুজন আলাদা রাজনীতি শুরু করে। তখন থেকেই দুজনের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়। এ ঘটনার ব্যাপার বাশঁখালী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ কামাল হোসেন বলেন, ইউপি সদস্য জামাল উদ্দীনের হামলার পর পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। তাকে চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে, মামলা হওয়ার পর আসামীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবেও বলে তিনি জানান।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য