Recents in Beach

Google Play App

বাঁশখালীর বাহারছড়া ইউনিয়ন পরিষদের মাঠে লাঙ্গলে ভোট চাইলেন মাহমুদুল ইসলাম

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চট্টগ্রাম-১৬, বাঁশখালী আসনের মহাজোট সমর্থিত ও জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরীর সমর্থনে ৪নং বাহারছড়া ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গণে এক পথসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

 রেজাউল করিম ইউনুস এর সভাপতিত্বে আজ ১৭ ডিসেম্বর পথসভাটি বিশাল অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

পথসভায় উপস্থিত জন সাধারণের উদ্যেশ্যে মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, আমি বাঁশখালীর উন্নয়নে সব সময় সচেতন ছিলাম। তৎকালে পটিয়া আনোয়ারা খালের উপর টেক্স চালু ছিল কিন্তু বাঁশখালীর জনসাধারণের স্বার্থে তা আমি বন্ধ করেছি। বিগত সময়ে বাঁশখালী পৌরসভার জলদীতে প্রধান সড়কের উপর বাঁশ ফেলে বিভিন্ন গাড়ী থেকে টোল আদায় করেছে। তা আমি জানার পর ২৪ ঘন্টার ব্যবধানে ওই টোল বন্ধ করে দিয়েছি।

তিনি আরো বলেন, বিগত ২০০৭-৮ সালের সরকার এর আমলে বিভিন্ন হাট বাজারের দোকানসমূহ অবৈধ উচ্ছেদ নিয়ে অভিযান করার কথা আসলে তার পরিপেক্ষিতে আমি তা রোধকল্পে ব্যবস্থা নিয়েছি। যখন বন্যায় উপকুলীয় এলাকার সাগর পাড়ে বসতঘর ভেঙ্গে যায় তখন বসতঘর হারা লোক গুলো নিরাুপায় হয়ে পাহাড়ে অবস্থান নিলে, তাদেরকে উচ্ছেদ করা হলে তা পুনর্বাসনের জন্য কতৃপক্ষের বরাবর প্রতিবাদ জানিয়েছি। বাঁশখালীর তৈলারদ্বীপ সেতুর টোল উঠিয়ে নেওয়ার ব্যাপারে আমি কাজ করেছি। আগামীতে ক্ষমতায় এলে তৈলারদ্বীপ সেতুর টোল উঠিয়ে দিব। এ অঞ্চলের সর্বস্তরের জনগণের সেবা করার লক্ষে আমাকে আর একটি সুযোগ দিন। লাঙ্গল মার্কায় ভোট চাই। লবন, মরিছ বিক্রেতা, পানের সাওদাগর, শ্রমিক-ড্রাইভারগণ আমার পরম বন্ধু। তাদের সাথে আমার উতপ্রোতভাবে সম্পর্ক। আমি সাড়ে ৮ শত বাঁশখালীর ছেলেদের চাকরি দিয়েছি। আমি আগামিতে নির্বাচিত হলে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত থাকবে।

সাজ্জাদ উল্লাহ চৌধুরী এর সঞ্চালনায় অন্যন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সরল ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আমিনুর রশিদ চৌধুরী, খানখানাবাদ ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আবু ছিদ্দিক আবু, এডভোকেট ফিরোজ, জসিম উদ্দিন সিকদার, নুরুল আবচার, অধ্যাপক জসিম উদ্দীন প্রমূখ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য