Recents in Beach

Google Play App

তৈলারদ্বীপ সেতুর টোল আদায় কারিরা মিলে এক আদালত পেশকারকে মারধর করার অভিযোগ

মোঃ এরশাদঃ চট্টগ্রাম পটিয়া-বাঁশখালী-আনোয়ারা (পি.এ.বি) সড়কের তৈলারদ্বীপ সেতুর নির্ধারিত টোলের চেয়ে বেশি টোল আদায়ের প্রতিবাদ করায় কারণে এক আদালতের পেশকারকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে।
চলিত মাসের ৪ নভেম্বর সেতু পারাপারে অতিরিক্ত টোল আদায়ের প্রতিবাদ করায় মারধরের শিকার হয়েছেন বান্দরবান জেলার লামা জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে কর্মরত পেশকার মোহাম্মদ মেজবাহ উদ্দিন।
মারধরের শিকার মোহাম্মদ মেজবাহ উদ্দীন বাদী হয়ে, তৈলারদ্বীপ সেতুর ঠিকাদারসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করেছেন।
মামলার বাদী মোহাম্মদ মেজবাহ উদ্দিন বলেন, ঠিকাদার রোকন উদ্দিন এবং টোল প্লাজায় টোল আদায়কারী শ্রমিক আবুল কাশেম, আবুল হাশেম, হেলাল উদ্দিন ও ইমরানকে আসামী করে চট্টগ্রাম চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সিআর মামলা ২৭৪ দায়ের করি।
বিজ্ঞ আদালত স্থানীয় আনোয়ারা থানার ওসিকে মামলা রুজু করার নির্দেশ দেন।
ওই প্রেক্ষিতে আনোয়ারা থানায় গত ৬ নভেম্বর মামলা রুজু হয়েছে। পুলিশ এখনও আসামিদের গ্রেপ্তার করছে না।
অভিযুক্ত মেসার্স এস.এফ. আর এন্টারপ্রাইজের প্রোপ্রাইটর ও সেতু ঠিকাদার রোকন উদ্দিন বলেন, ‘টোল প্লাজায় আমরা কোনো ধরনের অতিরিক্ত টোল আদায় করছি না এবং কাউকে মারধরও করছি না। আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করা হয়েছে।
আনোয়ারা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দুলাল মাহমুদ বলেন, টোল নিয়ে জটিলতার কারণে মামলাটি হয়েছে। প্রকৃত ঘটনা তদন্তে বাদী ও সাক্ষীকে ডাকা হয়েছে। তাদের সাথে কথা বলে প্রকৃত সত্য উপস্থাপন হবে।
সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী সাখাওয়াত হোসেন বলেন, ‘ঠিকাদারের মাধ্যমে অতিরিক্ত টোল আদায় ও গাড়ির শ্রমিকদের হয়রানির প্রমাণ পাওয়া গেলে ঠিকাদারের চুক্তি বাতিল কিংবা বড় জরিমানা ও নিরাপত্তা জামানত সরকারি কোষাগারে জমা হবে। ঠিকাদারের কোন ধরনের অনিয়ম সহ্য করা হবে না।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য