Recents in Beach

Google Play App

বাঁশখালীতে শহীদ আবুহান হত্যার আসামীদের ফাঁসি ও গ্রেপ্তারের দাবীতে মানববন্ধন

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ
চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে শহীদ আবুহান হত্যার মামলার গ্রেপ্তারকৃত আসামীদের ফাঁসি এবং বাকী আসামীদের গ্রেপ্তারের দাবীতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত।শুক্রবার (২৮ সেপ্টেম্বর) বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে বাঁশখালী উপজেলার গুনাগরী চৌমুহনী বাঁশখালী প্রধান সড়কে গুনাগরী সচেতন নাগরিক ও গুনাগরী শেখ রাসেল স্মৃতি সংসদের ব্যানারে মানববন্ধনে স্থানীয় শত-শত লোক অংশ গ্রহন করেন।গত ৭ আগস্ট সকালে নিজ বাড়ীর পাশে পেয়ারা বাগান থেকে পেয়ার খাওয়াকে কেন্দ্র করে এই হত্যা কান্ডের দুর্ঘটনা ঘটে। ছুরিকাঘাতে আবুহান নিহত হয়।

গত ৭ আগস্ট বাঁশখালী থানায় চার জনের নাম উল্লেখ্য করে মামলা দায়ের করেন শহীদ আবুহানের চাচা ফরিদ আহমদ।এই হত্যা মামলার প্রধান আসামী আলী আক্কাস কৌশলে আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। বাকী আসামী আব্দুল আলীম, আব্দুল কাদের ও আমিন পলাতক রয়েছে।আদালতে আত্মসমর্পণ কারী প্রধান আসামীকে বিজ্ঞ আদালত তাকে জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণ করেন। গুনাগরী ইয়াং স্টার ক্লাবের সভাপতি মো. নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে উপস্থিত ও পথসভায় বক্তব্য রাখেন, বাঁশখালী উপজেলা তাঁতীলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. হানিফ, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক পাঠাগার বিষয়ক সম্পাদক মঈন উদ্দীন মামুন, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক নাট্য ও বির্তক বিষয়ক সম্পাদক মো. রহিম উদ্দীন হৃদয়, ছাত্রলীগ নেতা রবিউল হোসাইন মিশু, জোবাইয়ের আলম, কালীপুর ইউনিয়ন তাঁতীলীগের সভাপতি তৌহিদুল ইসলাম, সাধনপুর ইউনিয়ন তাঁতীলীগের সাধারণ সম্পাদক ইমতিয়াজুল হক মুন্না, নজরুল, গিয়াস উদ্দীন, তৌহিদ, মহিউদ্দীন, আজম খাঁন প্রমূখ।
পথসভায় বক্তারা কঠোর হুশিয়ারী প্রদান করে বলেন, শহীদ আবুহান। নৃশংস এ হত্যাকান্ডের ঘটনায় পুলিশের কার্যক্রমের ধীরগতি ও আসামীদের পালিয়ে যেতে সহযোগিতার অভিযোগ তোলেন তারা। নিহতের স্বজনরা খুনীদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে সর্বোচ্চ শাস্তির দাবী জানান প্রশাসনের কাছে। এই হত্যাকান্ডে জড়িত বাকী আসামীদের অবলিম্বে গ্রেপ্তার করতে হবে। আগামী ৭দিনের মধ্যে যদি আসামীদের গ্রেপ্তার করা না হয় তাহলে কঠোর কর্মসূচী গ্রহণ করা হবে বলেও মানববন্ধনে হুশিয়ারী প্রদান করেন বক্তারা।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য