Recents in Beach

Google Play App

অাতঙ্ক অার বিড়ম্বনার অারেক নাম অানোয়ারা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স - বিপাকে প্রায় ১ লক্ষ মানুষ

মোহাম্মদ এরশাদঃ বর্তমান সরকার চিকিৎসা সেবা জনগনের দৌড়গোড়ায় পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে নিয়েছেন নানা বৈপ্লবিক উদ্যেগ। কিন্তুু সে মানসম্মত চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে অানোয়ারা উপজেলা,পাশ্ববর্তী বাঁশখালী ও কর্ণফুলী উপজেলার প্রায় এক লক্ষ মানুষ। সুদীর্ঘকাল সময় ধরে অানোয়ারা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর বিরুদ্ধে রয়েছে ভুল চিকিৎসা, হয়রানি, দায়িত্বে অবহেলা, লোকবল সংকট, অপরিচ্ছন্নতা, অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ ও একমাত্র অ্যাম্বুলেন্স সংরক্ষণহীন ও পরিত্যক্ত এসব বিষয় নিয়ে।

বিধাতার পর ডাক্তারদের দ্বিতীয় জীবনদান কারী বিধাতা বলা হয়। কিন্তু কিছু দায়িত্ব কর্তব্যহীন ডাক্তারদের কারণে সাধারণ মানুষ অাস্থা হারাচ্ছে ডাক্তারদের প্রতি বাড়ছে মন্দ ধারণা, জন্মাচ্ছে ক্ষোভ।

বিগত ২০১৬-১৭ সাল থেকে লোকবল সংকট এবং ডাক্তারদের যথাসময়ে মেডিকেলে উপস্থিত থাকা নিয়ে ছিল বেশ অভিযোগ। পত্রিকায় সংবাদ বের হয়েছে, অভিযোগের মিলেছে সত্যতা কিন্তুু সুরাহা মিলেনি। চলতি বছরের মে মাসে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ওয়ার্ডে কুকুর প্রবেশের মাধ্যমে কর্তৃপক্ষের খেয়ালিপনা মনোভাব ও অরক্ষণশীলতার প্রমাণ মেলে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সে ছবিটি ব্যাপক ভাইরাল হলে ও টনক নড়েনি কর্তৃপক্ষের। কোন রোগী কিংবা মরদেহ পরিবহনের জন্য বিকল্প অ্যাম্বুলেন্স ব্যতীত নেই কোন বিকল্প ব্যবস্থা। ফলে বিপাকে অানোয়ারা উপজেলা সহ বাঁশখালী ও প্বার্শবর্তী কর্ণফুলী উপজেলার প্রায় এক লক্ষ মানুষ।

ফিরে দেখা কিছু অভিযোগ 
১১ অাগষ্ট ২০১৬ চট্টগ্রামের বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক অালাউদ্দীন মজুমদার অানোয়ারা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরিদর্শনে এসে অনুপস্থিত ও গড় হাজিরা দেওয়া ৬ ডাক্তার কে শোকজ করেন। ২২ জানুয়ারী ২০১৭ মোহাম্মদ মোরশেদ হোসেন, অানোয়ারা দৈনিক পত্রিকার প্রতিনিধির করা রিপোর্ট পত্রিকার পাতা থেকে এক্স-রে ও অস্ত্রোপচার করা হয় না। চিকিৎসকদের শীর্ষ দুটি পদ খালি, একমাত্র অ্যাম্বুলেন্সটি নষ্ট।
২১ জুলাই ২০১৭, সময় দুপুর ১১:৪০ মিনিট নার্সরা হাসি -ঠাট্টা তামাসায় মগ্ন, ডাক্তারের রুমে তালা। বিপাকে রোগীরা।
২৯ অাগষ্ট ২০১৭ এক ভুক্তভোগীর সন্তানের টাইমলাইন থেকে নেওয়া ডাক্তার ঘুম চিকিৎসা নিতে এসে গুণতে হচ্ছে অপেক্ষার প্রহর। ২২ শে মে ২০১৮ অানোয়ারা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ওয়ার্ডে কুকুর প্রবেশ। পত্রিকা ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যামে ব্যাপক ভাইরাল হয় বিষয়টি।
১৭ সেপ্টেম্বর ভুক্তভোগীর বড় ভাইয়ের টাইমলাইন থেকে ব্লাড পরীক্ষার ভুল রিপোর্ট প্রদান। মোহাম্মদ কাইছার উদ্দীনের টাইমলাইন থেকে।
১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, সময় ১০:৪০ মিনিট রোগী অাছে ডাক্তার নেই। ভুক্তভোগীর টাইমলাইন থেকে।
অানোয়ারা বাসীর সমসাময়িক প্রাণের দাবী অানোয়ারা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে অতিদ্রুত চিকিৎসা উপযোগী একটা পরিবেশে ফিরিয়ে এনে সাধারণ মানুষের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করা ও সাধারণ মানুষের অাস্থা অর্জন। সেজন্য ভূমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ এর হস্তক্ষেপ ও প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করছেন অানোয়ারার সর্বস্তরের মানুষ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য