Recents in Beach

Google Play App

চেকপোস্টে যানবাহন থেকে টাকা আদায়, সার্জেন্ট ক্লোজ

করোনায় লকডাউনে চট্টগ্রাম নগরের প্রবেশপথে বসানো হয়েছে সিএমপির চেকপোস্ট। চেকপোস্টে মানুষের কাছ থেকে টাকা আদায়ের অভিযোগে আজ বুধবার (১৫ এপ্রিল) সকালে জাকির হোসেন নামের এক ট্রাফিক পুলিশের সার্জেন্টকে ক্লোজড করা হয়েছে। তিনি চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) ট্রাফিক-উত্তর বিভাগে কর্মরত বলে জানান সিএমপির উপ-কমিশনার (ট্রাফিক-উত্তর) মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ।
মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ জানান, শওকত হোসেন নামে এক ব্যক্তির কাছ থেকে চেকপোস্টে টাকা আদায় করার অভিযোগ উঠেছে সার্জেন্ট জাকির হোসেনের বিরুদ্ধে। তাকে ক্লোজড করা হয়েছে। তদন্ত শেষে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।
জানা যায়, ১৩ এপ্রিল বিকেলে চান্দগাঁও এলাকায় অফিস থেকে কাপ্তাই রাস্তার মাথা হয়ে মোটর সাইকেলযোগে বাড়ি ফেরার পথে চেকপোস্টে পড়েন শওকত হোসেন নামে এক ব্যক্তি। তিনি এশিয়ান গ্রুপে কর্মরত। চেকপোস্টে সার্জেন্ট জাকির তার কাছে প্রথমে কাগজপত্র দেখতে চান, সব ঠিকঠাক দেখার পর শওকত হোসেনকে সার্জেন্ট জানান তার গাড়িটি জব্দ করা হবে। শওকত হোসেন তখন সার্জেন্টকে বলেন- জব্দ কেন করবেন? কাগজপত্রে কোনো সমস্যা থাকলে মামলা দেন। পরে এ নিয়ে দুইজনের মধ্যে তর্কাতর্কি হয়। একপর্যায়ে সার্জেন্ট জাকির হোসেন শওকত হোসেনের কাছে পাঁচ হাজার টাকা দাবি করেন। পরে তিন হাজার ২৫০ টাকা দিয়ে ছাড়া পান শওকত হোসেন। বিষয়টি ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন শওকত হোসেন নামে ওই ব্যক্তি। বিষয়টি নজরে আসলে বুধবার সার্জেন্ট জাকির হোসেনকে ক্লোজড করা হয়।
উপ-কমিশনার মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ বলেন, ডিউটিতে অবহেলা বা অনৈতিক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকলে তাকে আমরা ছাড় দিইনা। কারও বিরুদ্ধে অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নিই। কেউ যদি হয়রানির শিকার হন তাহলে আমাদের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের কাছে সরাসরি অভিযোগ করতে পারেন। একজন ব্যক্তির দায় পুরো পুলিশ বাহিনীর উপর যাতে কেউ চাপিয়ে না দেন।
সুত্রঃ দৈনিক পূর্বকোণ  







একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য