Recents in Beach

Google Play App

বাঁশখালীতে সরকারি খাস জমি নিয়ে মারামারি নারীসহ আহত ৭

সংবাদদাতাঃ 
চট্টগ্রাম বাঁশখালীতে সরকারি খাস জমি দখল কে  কেন্দ্র করে ভুমিহীন পাহাড়ে বসবাস কারি অসহায় পরিবারের উপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। 

জানা যায় উপজেলার সাধনপুর ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড়ের লডমনি গ্রামের কামরুন্নাহার(৩৫)পিতা মৃত ছিদ্দিক আহমদ,জেয়াছমিন আক্তার(৩২) স্বামী আবদু ছবুর,হতিজা বেগম(৪০) স্বামী মহিউদ্দিন, নজুমা বেগম (৩৫)স্বামী মনি আলম,হাফেজ জামাল উদ্দিন (৫০)পিতা আব্দু রহমান, মোজাম্মেল (৪৫)পিতা আবদুল মন্নানসহ লডমনি গ্রামে সরকারি খাস জায়গায় ঘর বেঁধে দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করে আসছে। এই বসত ঘর উচ্ছেদ করে নিজের দখলে নিতে ৬ নং ওয়ার্ড়ের উত্তর সাধনপুর গ্রামের মোঃ ইদ্রীস মিয়ার ছেলে মোঃ ইউসুফ(৫৫)মোঃ ইলিয়াস(২৮) ও রেয়াজ উদ্দিনের ছেলে আবদুল আলিম গংগদের বিরোধ চলে আসছিল। হঠাৎকরে মঙ্গলবার সকালে ইউসুফরা উক্ত খাস জায়গার চলাচল পথে ঘেরা দিতে গেলে কমরুন্নাহার সহ আরও ১/২ জন বাধা দেয়,এতে কথা কাটাকাটি হয়, একপর্যায়ে ইউসুফ গংরা ক্ষিপ্ত হয়ে কমরুন্নাহারদের উপর হামলা করে বলে স্হানীয়রা জানান। 

আহত হাফেজ মোজাম্মেল ও নজুমা বেগম বলেন আজ সকালে হটাৎ ইউসুফ ও তার ভাই ইউনুস অকৃত্য ভাষায় গালাগাল করতে করতে তারা আমাদের চলাচল পথের উপর ঘেরা দিতে থাকে, আমরা বাধা দিতে গেলে তারা লাঠি দা নিয়ে আমাদের উপর অতর্কিত হামলা করে, একপর্যায়ে আমার মাথা ফেটে গেলে অজ্ঞান হয়ে যায়। ছেলে মেয়েদের কান্নাকাটি শুনে লোকজন এগিয়ে আসলে তারা পালিয়ে যায়। এব্যপারে থানায় কোন অভিযোগ করছে কিনা জানতে চাইলে আহত হাফেজ জামাল উদ্দিন জানান,আহত কয়েকজনের অবস্থা আশংকা জনক এদের নিয়ে ব্যস্ত আছি তবে মামলার প্রস্তুতি চলছে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে কর্তব্যরত চিকিৎসক বলেন আহত ২ জনের আগাত গুরুতর হওয়ায় এদেরকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে, বাকীদের এখানে ভক্তি  করা হয়েছে।

বাঁশখালী থানার অফিসার ইনচার্য রেজাউল করিম মজুমদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন,মারামারির ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনা স্থল পরিদর্শন করা হয়েছে, এবং ফোর্স পাঠিয়ে আহতদের দেখা হয়েছে,এই ঘটনায় এখনো কেউ অভিযোগ করেনি অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্হা নেওয়া হবে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য