Recents in Beach

Google Play App

জাতীয় ঐক্যকে ‘পথহারা পাখিদের জোট’ বললেন শাহরিয়ার কবির

বিএন ডেস্কঃ
জাতীয় ঐক্যকে ‘পথহারা পাখিদের জোট’ বলে মন্তব্য করেছেন একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির (ঘাদানিক) সভাপতি শাহরিয়ার কবির।
তিনি বলেন, ড. কামাল হোসেনের প্রণিত সংবিধান সাম্প্রদায়িক জামায়াতের রাজনীতি নিষিদ্ধ করেছিল। তিনি রাষ্ট্রের মালিক মনে করেন জনগণকে। আর বদরুদ্দোজা চৌধুরীর আদর্শিক নেতা জিয়াউর রহমান জামায়াতকে রাজনীতি করার সুযোগ করে দিয়েছিলেন। জামায়াত তো জনগণকে রাষ্ট্রের মালিক মানে না। এজন্যই সংবিধানের সাথে জামায়াতের গঠনতন্ত্র সাংর্ষিক হওয়ায় তাদের নিবন্ধন বাতিল হয়েছে। এখন কামাল সাহেব আর বি চৌধুরী একসাথে জোট করে কে কোনটি মানবেন? স্বাধীনতার ঘোষণার প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, আমাদের মহান স্বাধীনতার ঘোষণাপত্রে স্বাধীনতার ঘোষক হিসেবে বঙ্গবন্ধুর নাম থাকলেও বিএনপি জিয়াউর রহমানকে স্বাধীনতার ঘোষক বলে দাবি করছে। অথচ জেনারেল জিয়াকে স্বাধীনতার ঘোষক বলা হলে স্বাধীন বাংলাদেশের কন্সেপশনই থাকে না।
আজ সোমবার দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি আশুগঞ্জ উপজেলা শাখার সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।
উপজেলা ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির আহবায়ক মোবারক আলী চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে বিশেষ অতিথি ছিলেন ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক কাজী মুকুল, সহ-সাধারণ সম্পাদক ডা. নুশহাত জাহান শম্পা, ঘাদানিক ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. লিটন দেব, আশুগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক মো: ছফিউল্লাহ, যুগ্ম আহবায়ক আবু নাছের আহমেদ।
বক্তৃতা করেন, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার মো: ইকবাল হোসেন, আওয়ামী লীগ নেতা হেবজুল বারী, সিপিবি নেতা ইকবাল হোসেন, ঘাদানিক উপজেলা শাখার যুগ্ম আহবায়ক শাহীন সিকদার, যুবলীগ নেতা মোশারফ মুন্সী ও উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মারুফ আমেদ রনি প্রমুখ।
প্রধান অতিথির বক্তৃতায় শাহরিয়ার কবির আরো বলেন, বিএনপি যতবারই ক্ষমতায় গেছে সংখ্যালগুদের উপর নির্যাতনের স্টিমরোলার চালিয়েছে। তাই আগামী নিবাচনেও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী দলকে ভোট দিতে হবে।
তিনি স্বাধীনতাবিরোধী কোনো প্রার্থীকে মনোনয়ন না দেয়ার জন্য আওয়ামী লীগের প্রতি আহবান জানান।

যুক্তফ্রন্ট বিএনপি’র জগাখিচুড়ির ঐক্য টিকবে না : কাদের
বাসস, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, যুক্তফ্রন্টের সঙ্গে বিএনপির ঐক্য আসলেই একটি জগাখিচুড়ির ঐক্য।
তিনি বলেন, ‘তাদের এই ঐক্য শেষ পর্যন্ত টিকবে বলে আমার বিশ্বাস হয় না।’
ওবায়দুল কাদের সোমবার সকালে পর্যটন শহর কক্সবাজারে পুষ্পদাম রেস্টুরেন্টের উদ্বোধনের পর যুক্তফ্রন্ট ও বিএনপির ঐক্য সম্পর্কে জানতে চাইলে একথা বলেন।
এ সময় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম, কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা ও আশেকউল্লা রফিক এমপি উপস্থিত ছিলেন।
‘ঢাকা-নীলফামারী ট্রেন যাত্রায় জনসমাগমে ব্যর্থ হয়ে আওয়ামী লীগ ঢাকা-চট্টগ্রাম-কক্সবাজার সড়ক যাত্রা কর্মসূচি নিয়েছে’- বিএনপির এমন বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, আওয়ামী লীগের এই দু’টি সফরে লাখ লাখ লোকের সমাগম হয়েছে।
তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের ট্রেন ও সড়ক যাত্রায় অবিশ্বাস্য জনস্রোত দেখে বিএনপির নেতারা হতাশা থেকে এ ধরনের আবোলতাবোল কথা বলছেন।
কাদের বলেন, আওয়ামী লীগের শক্তিকেন্দ্র হচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার উন্নয়ন, অর্জন, সততা ও ব্যক্তিত্বের প্রতি জনগণের গভীর আস্থা রয়েছে। বিদেশেও তিনি প্রশংসিত।
সেতুমন্ত্রী বলেন, দেশের মানুষ বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার প্রতি আস্থাশীল। আর এ জন্য আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সফরে জনগণের স্বতঃস্ফূর্ত উপস্থিতি জনসমুদ্রে পরিণত হয়।
সরকার সংবিধানের বাইরে একচুলও নড়বে না
আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার সংবিধানের বাইরে একচুলও নড়বে না।
তিনি বলেন, ‘ইচ্ছে হলে কেউ নির্বাচনে অংশ নেবে, ইচ্ছে না হলে নেবে না। কাউকে নির্বাচনে দাওয়াত করে আনবো না।’
রোববার রাত ৯টায় কক্সবাজার জেলার সদর উপজেলার কেন্দ্রীয় ঈদগা মাঠে স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।
সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু তালেবের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জনসভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ সভাপতিমন্ডলীর সদস্য এভকোকেট আবদুল মতিন খসরু, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল হানিফ, সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে এম এনামুল হক শামীম, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান খান বাহাদুর মোস্তফা আহমেদ ও সায়মুন সারোয়ার কমল এমপি।
ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি দলীয় গঠনতন্ত্র থেকে ৭ ধারা বাদ দিয়ে নিজেদের আত্মস্বীকৃত একটি দুর্নীতিবাজ দল হিসেবে প্রমাণ করেছে।
বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনীদের রক্ষা করতে জিয়াউর রহমান পবিত্র সংবিধানে পঞ্চম সংশোধনী কেনো এনেছিলো তা বিএনপি’র কাছে জানতে চেয়ে তিনি বলেন, এর জবাব দিতে ব্যর্থ হলে আগামী নির্বাচনে বিএনপিকে আরো নির্মম পরিণতি ভোগ করতে হবে।
এর আগে তিনি চকোরিয়া বাস টার্মিনাল মাঠেও অপর একটি জনসভায় বক্তৃতা করেন। এতে সভাপতিত্ব করেন, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আবু জাফর আহমদ বিএ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য