Recents in Beach

Google Play App

বাঁশখালীতে আগুন লেগে চার দোকান ভস্মীভূত, ক্ষয়-ক্ষতি অর্ধ কোটি টাকা!


বিএন ডেস্কঃ চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলাধীন গুনাগরী বাজারস্থ আমিন মার্কেটে মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১২টা ২০ মিনিটে আগুন লেগে চারটি দোকান পুড়ে গেছে। এত ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে পার্শ্বের আরো পাঁচ দোকানদার।এ দূঘটনায় প্রায় অধ্য কোটি টাকার মালামাল পুড়ে গেছে বলে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিরা ‘আমার বাঁশখালী.কম’কে জানিয়েছে।

আগুনের খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে আসে নিয়ন্ত্রণের জন্য অধ্য ঘন্টার বেশি চেষ্টা করেন।
আগুনের সংবাদ পেয়ে সাথে সাথে স্থানীয় ব্যবসায়ী ও সাংবাদিক ছৈয়দুল আলম রাত ১২টা ২৭ মিনিটে ৯৯৯ নম্বরের মাধ্যমে বাঁশখালী ফায়ার স্টেশনে অগ্নিকাণ্ডের খবর পাঠায়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে যায়। রাত ১টা ৮মিনিটের। ১টা ৪২ মিনিট পর্যন্ত ৩৪ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

এ দূঘটনায় বাঁশখালীর প্রধান সড়কে প্রায় এক ঘন্টার গাড়ী চলাচল বন্ধ থাকে।
সূত্র জানায়, মঙ্গলবার দিবা গত রাতে গুনাগরী বাজার এলাকার আমির মার্কেটে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়।
মুহূর্তে আগুন ছড়িয়ে পড়ে পুরো মাকেটে চারটি দোকান ভস্মীভূত হয়। এগুলো ছিল হাফিনের ওষুদের দোকান, সন্তুষের ফুলের দোকান, ডিলার মাহফুজের সার ও চালেল গুদাম ও একটি ওয়ার্কসপ সহ পার্শ্বের দোকান ছিলো আবুল কালামের তেলের দোকান, জাফরের মাইক সার্ভিস, স্টীলের দোকান, ফ্রিরিজের দোকান, সাইকেলের দোকান এসব দোকানদারও ক্ষতিগ্রস্ত হয়।। এতে প্রায় অধ্য কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা দাবি করছেন।

ক্ষতিগ্রস্ত দোকানমালিক হানিফ ও সন্তুষ বাবু জানান, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় কোনো মালামাল রক্ষা করা সম্ভব হয়নি।
গুনাগরী বাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভাপতি ফরহাদুল ইসলাম ‘আমার বাঁশখালী ডটকম’কে বলেন, স্থানীয় লোকজন নিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণের জন্য অলেক চেষ্টা করেছে।পরে বাঁশখালী ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। এই আগুন ঘটনায় ব্যবসায়ীদের প্রায় অধ্য কোটি টাকা ক্ষতি হয়েছে। এবং তিনি উপজেলা প্রশাসানের কাছে অনুরোধ করেন অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের সরকারীভাবে সহযোগিতার জন্য।
/আমার বাঁশখালী

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য