Recents in Beach

Google Play App

পৌরবাসীর সেবা করতে চাই ডা: খলিলুর রহমান চৌধুরীর পুত্র বধু ইয়াছমিন

আব্দুল আলীম নোবেলঃ আগামী ২৫জুলাই কক্সবাজার পৌরসভার নির্বাচন ঘোষণা করছেন নির্বাচন কমিশন। এই নিয়ে বিভিন্ন প্রার্থীরা নির্বাচনের মাঠে নামতে দেখা যাচ্ছে। ইতোমধ্যে কক্সবাজার পর্যটন শহরের নির্বাচনী হাওয়া বয়তে শুরু করেছে। খবর পাওয়া যাচ্ছে নতুন পুরাতন মিলে একাধিক মেয়র প্রার্থী ও কাউন্সিলরসহ শতাধিক প্রার্থী মাঠে নামার গুজন। এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানাগেছে এইবারে মাঠে দেখা মিলবে পরিচ্ছন্ন তরুণ ও তরুণী, শিক্ষিত নারী-পুরুষ প্রার্থীদের। কেউ কেউ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রচার প্রচরানা শুরু করে দিয়েছেন। জানাগেছে মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তি নারী নেত্রী ও সমাজ সেবিকা ইয়াছমিন আক্তার, কক্সবাজার পৌরসভার ৪,৫,৬ ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী আসন থেকে কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে সাধারণ মানুষের সেবা করতে চাই। এতে এই এলাকার ভোটার ও সাধারণ মানুষের দোয়া ও ভোট প্রত্যাশী ইয়াছমিন আক্তার । মেধাবী ও পরিচ্ছন্ন এই নারী নেত্রী ইয়াছমিন, গরিব মেহনতি, নির্যাতিত নারীদের পাশে থেকে সাধারণ মানুষের সেবা ও সমৃদ্ধ পৌর নগরী গড়তে স্বপ্ন দেখেন বলে জানান তিনি। ইয়াছমিন গতবারের পৌর নির্বাচনেও সংরক্ষিত নারী আসন থেকে প্রায় ৪ হাজার ভোট পেয়েছিল, বিজিত প্রার্থীর নিকটতম প্রতিধন্ধি হিসাবে সামান্য ভোটে হেরে গিয়ে পরাজিত হন এই নারী নেত্রী। ছোট কাল থেকে স্বপ্ন দেখেন মানুষের সেবা করা তার, গতবার পরাজিত হলেও কোনভাবে ঘাবড়ে যায়নি। তিনি এই এলাকার মানুষের দোয়া ও ভালবাসা পেলে এই নির্বাচনে অবশ্যই পাশ করবেন বলে অত্যন্ত বিশ্বাস ও সাহসিকতার সাথে মতপ্রকাশ করেন তিনি।    
ইয়াছমিন আক্তার কক্সবাজার পৌরসভার বিজিবি ক্যাম্প সংলগ্ন চৌধুরী পাড়ার এলাকার বাসিন্দা ঐতিহ্যবাহী পরিবারের সদস্য মরহুম ডা: খলিলুর রহমানের পুত্র বধু। তাহার পুত্র নুরুল হুদা চৌধুরীর স্ত্রী নারী নেত্রী ইয়াছমিন আক্তার। নুরুল হুদা চৌধুরীর প্রয়াত দাদা জিন্নাত আলী চৌধুরী ছিলেন, তৎকালিন রাজনৈতিক ও জমিদার বাড়ির সন্তান। এই পরিবারের সমাজ সেবাসহ নানাভাবে ভূমিকা রয়েছে যেমন ১৯৫৪ সালের যুক্তফ্রন্ট নির্বাচনের তাহার ছিল অতুলীয় ভূমিকা। এই পরিবারটি সেই সময় থেকে সাধারণ মানুষেল পাশে থেকে নানাভাবে সামাজের উন্নয়নে অগ্রনী ভূমিকা রেখেছে বলে এলাকাবাসী সূত্রে জানাগেছে। অপর দিকে নারী নেত্রী ইয়াছমিন আক্তারের বাবা ঐতিহ্যবাহী পরিবারের সন্তান, রামু থানার অন্তরগত খুনিয়া পালং ইউনিয়নের জনদরদী সাবেক চেয়ারম্যান আব্দু রহমান সওদাগর ও তার মা নুরনাহার বেগমও একাধিকবার ইউপি মেম্বার ছিলেন বলে জানাগেছে। সমৃদ্ধ দুই পরিবার থেকে পাওয়া রাজনৈতিক শিক্ষাকে কাজে লাগিয়ে কক্সবাজার পৌরসভার ৪,৫,৬ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা আসন থেকে নির্বাচন করার কথা জানিয়েছেন সাধারণ মানুষের প্রিয় নেত্রী ইয়াছমিন আক্তার। সমাজ সেবিকা, বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সদস্য, বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের কক্সবাজার জেলা শাখার গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ও পরিকল্পিত কক্সবাজার আন্দোলনের নির্বাহী সদস্য ইয়াছমিন আক্তার সবসময় একটি কথা বলেন, নেত্রী হতে চাই না,সাধারণ মানুষের সেবায় একজন কর্মী হয়ে থাকতে চাই। এছাড়া তিনি আরো বলেন, মানুষের সেবা করলেই, নির্বাচিত হলে একবার জনগণ ভোট দিবে বার বার। 

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য